বাংলাদেশ

বাংলাদেশের ৬৪ জেলার দর্শনীয় স্থান ও ভ্রমণ স্পট

বাংলাদেশের ৬৪ জেলার দর্শনীয় স্থান ও ভ্রমণ স্পট এর অবস্থানসহ বিবরণ জানা থাকলে ভ্রমণ অপেক্ষাকৃত সহজ হবে । আসুন আমরা জেনে নিই বাংলাদেশের দর্শনীয় স্থানসমূহ :

৬৪ জেলার ভ্রমণস্পট

বাংলাদেশের ৬৪ জেলার দর্শনীয় স্থান ও ভ্রমণ স্পট

১। খাগড়াছড়ি জেলার দর্শনীয় স্থান : আয়তন ২৬৯৯.৫৬ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ৯টি। ইউনিয়নঃ ৩৮টি ।

ভ্রমণস্পটঃ

  • ১। আলুটিলা
  • ২। কংলাক পাড়া
  • ৩। আলুটিলা গুহা
  • ৪। শান্তিপুর অরণ্য কুটির
  • ৫। তারেং
  • ৬। হর্টিকালচার পার্ক 
  • ৭। নিউজিল্যান্ড পাড়া 
  • ৮। রিসাং ঝর্ণা 
  • ৯। দেবতাপুকুর 
  • ১০। বিডিআর স্মৃতিসৌধ 
  • ১১। তৈদুছড়া ঝর্ণা

২। রাঙ্গামাটি জেলার দর্শনীয় স্থান : আয়তনঃ ৬১১৬.১৩ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ১০টি, ইউনিয়নঃ ৫০টি ।

ভ্রমণস্পটঃ

  • ১। কাপ্তাই লেক 
  • ২। কাপ্তাই জাতীয় উদ্যান
  • ৩। পেদা টিং টি
  • ৪। সুবলং ঝর্ণা 
  • ৫। চাকমা রাজার বাড়ি
  • ৬। কর্ণফুলী পেপার মিলস্
  • ৭। চিৎমরম বৌদ্ধ বিহার
  • ৮। সাজেক ভ্যালি
  • ৯। ঝুলন্ত ব্রীজ
  •  ১০। উপজাতীয় যাদুঘর 
  • ১১। টুকটুক ইকো ভিলেজ
  • ১২। রাজারবন বিহার 
  • ১৩। ফরমোন পাহাড়
  • ১৪। নৌ-বাহিনী পিকনিক স্পট
  • ১৫। রাজস্থলী ঝুলন্ত ব্রীজ 
  • ১৬। ন-কাবা ছড়া ঝর্ণা

৩। বান্দরবান জেলার দর্শনীয় স্থান : আয়তনঃ ৪৪৭৯.০৩ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৭টি, ইউনিয়নঃ ৩৩টি ।

ভ্রমণস্পটঃ

  • ১। চিম্বুক পাহাড়
  • ২। মেঘলা পর্যটন কমপ্লেক্স
  • ৩। নীলাচল
  • ৪। জীবন নগর পাহাড়
  • ৫। আলীর সুড়ঙ্গ 
  • ৬। তাজিংডং 
  • ৭। ক্যামলং জলাশয় 
  • ৮। বৌদ্ধ ধাতু জাদী 
  • ৯। নীলগিরি 
  • ১০। বগা লেক
  •  ১১। মিরিঞ্চা 
  • ১২। শুভ্রনীল
  •  ১৩। কেওক্রাডং 
  • ১৪। উপবন লেক ।
  •  ১৫। নাফাখুম- আমিয়াখুম ।

৪। ময়মনসিংহ জেলার দর্শনীয় স্থান : আয়তন ৪৩৬৩.৪৮ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ১৩টি, ইউনিয়নঃ ১৪৬টি ।

ভ্রমণস্পটঃ

১। শশী লজ

 ২। গৌরিপুর হাউজ

৩। রাজ রাজেশ্বর ওয়াটার ওয়ার্কস

৪। ময়মনসিংহ টাউন হল

৫। কালুদীঘি

৬। মহারাজ সূর্যকান্তের বাড়ি

 ৭। চীনা মাটির ঢিলা

 ৮। শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদীনের সংগ্রশালা

 ৯। গারো পাহাড়,

১০। অর্কিড বাগান

 ১১। আলাদিনস্ পার্ক 

১২। সন্তোষপুর রাবার বাগান 

১৩। আলেকজান্ডার ক্যানেল 

১৪। স্বাধীনতা স্তম্ভ

১৫। বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়

৫। জামালপুরঃ আয়তনঃ ২০৩১.৯৮ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৭টি,  ইউনিয়নঃ ১৫টি

ভ্রমণস্পটঃ

  • ১। হযরত শাহ্ জামাল রহ. এর মাজার
  • ২। হযরত শাহ্ কামাল রহ. এর মাজার
  • ৩। গান্ধী আশ্রম
  • ৪। মালঞ্চ মসজিদ
  • ৫। ঝিনাই নদীর উৎসমুখ
  • ৬। লাউচাপড়া পিকনিক স্পট
  • ৭। দয়াময়ী মন্দির
  • ৮। দেওয়ানগঞ্জ সুগার মিলস্

৬। গাজীপুরঃ আয়তনঃ ১৭৭০.৫৪ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ৫টি

ভ্রমণস্পটঃ

  1. ১। বঙ্গবন্ধু সাফারী পার্ক
  2. ২। ন্যাশনাল পার্ক
  3. ৩। ভাওয়াল রাজবাড়ি
  4. ৪। জাগ্রত চৌরঙ্গ
  5. ৫। ছুটি রিসোর্ট
  6. ৬। বাসরী
  7. ৭। নুহাস পল্লী
  8. ৮। ভাওয়াল রাজ শ্মশানেশ্বরী
  9. ৯। জয় কালী মন্দির
  10. ১০। দরগা পাড়া শাহী মসজিদ

৭। নেত্রকোনাঃ আয়তনঃ ২৮১০ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ১০টি ,  ইউনিয়নঃ ৮৬টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। বিজয়পুর

২। বিরিশিরি কালচারাল একাডেমী

৩। রাণীমাতা রাশমণি স্মৃতিস্তম্ভ

৪। কমলা রাণী দীঘি

৫। সাত শহীদের মাজার

৬। রাণীখং মিশন

৭। টংক শহীদ স্মৃতিসৌধ

৮। চিনা মাটির পাহাড়

৮। শেরপুরঃ আয়তনঃ ১৩৬৩.৭৬ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৫টি,  ইউনিয়নঃ ৫২টি

ভ্রমণস্পটঃ

  • ১। গজনী অবকাশ কেন্দ্র
  • ২। মধুঢিলা
  • ৩। রাজার পাহাড় ও বাবেলাকোনা
  • ৪। নয়বাড়ির ঢিলা
  • ৫। পানিহাটা তারানি পাহাড়
  • ৬। কলা বাগান
  • ৭। সুতানাল দীঘি
  • ৮। শেরপুর পর্যটন কেন্দ্র

৯। ঢাকাঃ আয়তনঃ ১৪৬৩.৬০ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৫টি ।

ভ্রমণস্পটঃ

১। আহসান মঞ্জিল

২। ছোট কাটরা

৩। হোসেনী দালান

৪। জিনজিরা প্রাসাদ

৫। তারা মসজিদ

৬। ঢাকা চিড়িয়াখানা

৭। বোটানিক্যাল গার্ডেন

৮। লালবাগ কেল্লা

৯। বাহাদুর শাহ পার্ক

১০। রায়ের বাজার বদ্ধভূমি

১১। সাত গম্বুজ মসজিদ

১২। সোহরাওয়ার্দী উদ্যান

১৩। রোজ গার্ডেন

১৪। জাতীয় সংসদ ভবন

১৫। জাতীয় যাদুঘর

১০। টাঙ্গাইলঃ আয়তনঃ ৩৪১৩.৬৮ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ১২টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। মহেড়া জমিদার বাড়ি

২। উপেন্দ্র সরোবর

৩। এলেঙ্গা রিসোর্ট

৪। বঙ্গবন্ধু বহুমুখী সেতু

৫। চর গাবসারা দাখিল মাদ্রাসা

৬। শহীদ সালাহউদ্দিন সেনানিবাস

৭। আতিয়া মসজিদ

৮। পাকুটিয়া জমিদার বাড়ি

৯। নাগরপুর জমিদার বাড়ি

১০। ডিস লেক

বাংলাদেশের দর্শনীয় স্থানসমূহ

১১। বাগেরহাটঃ আয়তনঃ ৫৮৮২.১৮ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৯টি , ইউনিয়নঃ ৭৫টি

ভ্রমণস্পটঃ

  • ১। খানজাহান আলীর রহ. মাজার
  • ২। খাঞ্জেলী দীঘি
  • ৩। নয়গম্বুজ মসজিদ
  • ৪। জিন্দাপীর মসজিদ
  • ৫। বাগেরহাট যাদুঘর
  • ৬। ষাটগম্বুজ মসজিদ
  • ৭। সিংগাইর মসজিদ
  • ৮। সাবেক ডাঙ্গা পূরাকীর্তি
  • ৯। অযোধ্যা মাঠ

১২ । বগুড়াঃ আয়তনঃ ২৯১৯ বর্গ কি.মি., উপজেলাঃ ১২টি, ইউনিয়নঃ ১০৯ টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। মহাস্থানগড়

২। যোগীর ভবনের মন্দির

৩। পাঁচপীর মাজার কাহালু

৪। সারিয়াকান্দির পানি বন্দর

৫। জয়পীরের মাজার

৬। সান্তাহার সাইলো

৭। দেওতা খানকাহ মাজার

৮। বেহুলার বাসরঘর

১৩। বরিশালঃ আয়তনঃ ২৭৮৪.৫২ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ১০টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। কলসকাঠি জমিদার বাড়ি

২। পাদ্রি শিবপুর গির্জা

৩। কসবা মসজিদ

৪। মহিলাড়া মঠ

৫। চরামদ্দী মুঙ্গাখান মসজিদ

৬। হিজল তলার বিল

৭। আরিফ মাহমুদের বাড়ি

৮। গুঠিয়া মসজিদ

৯। দূর্গাসাগর

১০। কীর্ত্তনখোলা নদী

১১। আব্দুর রব সেরনিয়াবাত নদী

১২। বঙ্গবন্ধু উদ্যান

১৩। হযরত মল্লিক দূত কুমার শাহ্ রহ. মাজার

১৪। ব্রাহ্মণবাড়িয়াঃ আয়তনঃ ১৯২৭.১১ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ৯টি, ইউনিয়নঃ ১০০টি

ভ্রমণস্পটঃ

  1. ১। কেল্লা পাথন শহীদ সমাধীস্থল
  2. ২। নাটঘর মন্দির
  3. ৩। জয়কুমার জমিদার বাড়ি
  4. ৪। আয়েত উল্লাহ শাহ রহ. এর মাজার
  5. ৫।  আব্দুর রহমান শাহ রহ. এর মাজার
  6. ৬। কালিকচ্ছ নন্দীপাড়াস্থ দয়অময় আননন্দ ধাম
  7. ৭। রসুল্লাবাদ খান বাড়ির দীঘির পাড়
  8. ৮। কেল্লা শহীদ মাজার
  9. ৯। কচুয়া মাজার
  10. ১০। আরিফাইল মসজিদ
  11. ১১। টিঘর জামাল সাগর দীঘি
  12. ১২। এমপি টিলা

১৫। ভোলাঃ আয়তনঃ ৩৪০৩.৪৮ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৭টি, ইউনিয়নঃ ৬৬টি ।

ভ্রমণস্পটঃ

১। চর মনপুরা

২। চর কুকরি মুকরি

৩। দেওলি

৪। মনপুরা ফিসারিজ লিঃ

৫। ঢাল চর

৬। মনপুরা ল্যান্ডিং স্টেশন

১৬। বরগুনাঃ আয়তনঃ ১৯৩৯.৩৯ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৬টি, ইউনিয়নঃ ৪২টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। লালদিয়া বন

২। টেংগিরি ইকো পার্ক

৩। রাখাইন পল্লী

৪। বিবিচিনি শাহী মসজিদ

৫। হারিঘাটা ইকো পার্ক

৬। শুভসন্ধ্যা সমুদ্র সৈকত

৭। সিডর স্মৃতিস্তম্ভ

৮। বিহঙ্গ দ্বীপ

৯। বুকাবুনিয়া মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিস্তম্ভ

১৭। চাঁদপুরঃ আয়তনঃ ১৭৪০.৬০ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ৬টি , ইউনিয়নঃ ৮৯টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। তিন নদীর মোহনা

২। হযরত রাস্তি শাহ রহ. এর মাজার

৩। ইলিশ চত্বর

৪। শপথ চত্বর

৫। ডিসির বাংলো

৬। নুনিয়া দত্তের বাড়ি পূজা মন্দির

৭। রক্তধারা

৮। অঙ্গীকার

৯। চাঁদপুর স্টেডিয়াম

১০। চৌধুরী বাড়ি

১৮। চাপাইনবাবগঞ্জঃ আয়তনঃ ১৭০২.৫৬ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৫টি, ইউনিয়নঃ ৪৫টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। ছোট সোনা মসজিদ

২। দারসবাড়ি মসজিদ

৩। খঞ্জনাদীঘির মসজিদ

৪। তিন গম্বুজ মসজিদ

৫। কোতোয়ালী দরজা

৬। ঐতিহাসিক আলী শাহ পুর মসজিদ

৭। আল্পনা গ্রাম

৮।  কানসাট আম বাজার

বাংলাদেশের দর্শনীয় গ্যালারি ও ভ্রমণস্পট

১৯। চট্টগ্রামঃ আয়তনঃ ৫২৮৩ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ১৬টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। ফয়েজ লেক

২। চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা

৩। ওয়্যার সিমেট্রি

৪। বায়েজিদ বোস্তামীর রহ. মাজার

৫। লালদীঘি

৬। মন্দাকিনী শিব মন্দির

৭। চা বাগান

৮। মির্জাখিল দরবার শরীফ

৯। জাতিতাত্বিক যাদুঘর

১০। পতেঙ্গা সমুদ্র সৈতক

১১। বাটালি

১২। ভাটিয়ারি লেক

১৩। বায়তুল ইজ্জত

১৪। হালদা নদী

১৫। ঠাকুর দীঘি

১৬। ডিসি হল

২০। কক্সবাজার জেলার দর্শনীয় স্থান : আয়তনঃ ২৪৯১.৮৬ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৮টি , ইউনিয়নঃ ৭১টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। পাতাবাড়ি বৌদ্ধ বিহার

২। রাখাইন পল্লী

৩। মাতামুহুরী নদী

৪। কানা রাজার সুরঙ্গ

৫। ডুলা হাজরা সাফারী পার্ক

৬। সেন্টমার্টিন দ্বীপ

৭। হিমছড়ি

৮। লামারপাড়া বৌদ্ধ বিহার

৯। বড় রাখাইন পাড়া বৌদ্ধ

১০। রাবার বাগান

১১। ইনানী সী বিচ

১২। আদিনাথ মন্দির

১৩। কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত

১৪। রাডার স্টেশন

১৫। রামকূট বৌদ্ধ বিহার

২১। ফরিদপুরঃ আয়তনঃ ২০৭২.৭২ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৯টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। কবি জসীম উদ্‌দীনের বাড়ি

২। জগদ্বন্ধু সুন্দর এর আশ্রম

৩। মথুরাপুর মসজিদ

৪। বীরশ্রেষ্ঠ ল্যান্স নায়েক মুন্সী আব্দুর রউফ গ্রন্থাগার ও স্মৃতি জাদুঘর

৫। পাতরাইল মসজিদ

৬। শিশুপার্ক

২২। দিনাজপুরঃ আয়তনঃ ৬৪৪৪.৩০ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ১৩টি , ইউনিয়নঃ ১০৩টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। নয়াবাদ মসজিদ

২। কান্তজির মন্দির

৩। স্বপ্নপুরী

৪। রাজবাড়ি

৫। রাম সাগর

৬।  সুখ সাগর ইকো  পার্ক

২৩। চুয়াডাঙ্গাঃ আয়তনঃ ১১৭০.৮৭ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৪টি, ইউনিয়নঃ ৩৮ টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। হযরত মালেক উল গাউস রহ. এর মাজার

২। মুক্তিযোদ্ধা গণকবর

৩। শরৎচন্দ্রের স্মৃতি বিজড়িত কাশীপুর জমিদার বাড়ি

৪। শিয়েল পীরের মাজার

৫। রাখাল শাহ এর মাজার

৬। দৌলতগঞ্জ-মাজদিয়া স্থলবন্দর

৭। দুয়া বাওড়

৮। ইস্টাবলিস ডিজিটাল কানেক্টিভিটি

২৪। কুমিল্লাঃ আয়তনঃ ৩০৮৭.৩৩ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ১৭টি, ইউনিয়নঃ ১৮৫টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। শালবন বৌদ্ধ বিহার

২। বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমী

৩। বীরচন্দ্র গণপাঠাগার

৪। উটখাড়া মাজার

৫। নূর মানিকচর জামে মসজিদ

৬। গোমতী নদী

৭। নওয়াব ফয়জুন্নেসার স্বামী গাজী চৌধুরীর বাড়ির মসজিদ

৮। ময়নামতি ওয়্যার সিমেট্রি

৯। শাহ সুজা মসজিদ

১০। নগর মিলনায়তন

১১। বায়তুল আজগর জামে মসজিদ

১২। কবি তীর্থ দৌলতপুর

২৫। ফেনীঃ আয়তনঃ ৯২৮.৩৪ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৬টি, ইউনিয়নঃ ৪৩টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। চৌধুরী বাড়ি মসজিদ

২। জংলী শাহ মাজার

৩। বিলোনিয়া স্থলবন্দর

৪। পাগলা মিঞার মাজার

৫। রাজাঝীর দীঘি

৬। শমসের বাড়ী দীঘি

৭। আব্দুল্লাহ শাহ মাজার

৮। সোনাগাজী মুহুরী সেচ প্রকল্প

৯। শিলুয়ার শীল পাথর

১০। বিজয় সিংহ দীঘি

২৬। হবিগঞ্জঃ আয়তনঃ ২৬৩৬.৫৮ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৯টি, ইউনিয়নঃ ৭৭টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিস্তম্ভ

২। শংকর পাশা শাহী মসজিদ

৩। ভাওয়ানী চা বাগান

৪। শচী অঙ্গন ধাম মন্দির

৫। মশাজানের দীঘি

৬। সাতছড়ি জাতীয় উদ্যান

৭। বিতলঙ্গ আখড়া

৮। রেমা কালেঙ্গা বন্য প্রাণী অভয়ারণ্য

২৭। গোপালগঞ্জঃ আয়তনঃ ১৪৮৯.৯২ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ৫টি, ইউনিয়নঃ ৬৮টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধী সৌধ

২। ওড়াকান্দি ঠাকুর বাড়ি

৩। জমিদার গিরিশ চন্দ্র সেনের বাড়ি

৪। অনন্যা চন্দ্র ঘাট

৫। উলপুর জমিদার বাড়ি

৬। পদ্মবিল

৭। বধ্যভূমি স্মৃতিসৌধ

৮। শতবর্শী আমগাছ

২৮। গাইবান্ধাঃ আয়তনঃ ২১৭৯.২৭ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৭টি , ইউনিয়নঃ ৮২টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। বালাসী ঘাট

২। গাইবান্ধা পৌরপার্ক

৩। রংপুর সুগার মিলস

৪। বর্ধনকুঠি

৫। শাহ সুলতান গাজীর মসজিদ

৬। প্রাচীন মাস্তা মসজিদ

৭। এস.কে.এস ইনন

৮। ফ্রেন্ডশিপ সেন্টার

২৯। কিশোরগঞ্জঃ আয়তনঃ ২৬৮৮.৫৯ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ১৩টি, ইউনিয়নঃ ১০৮ টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। নিকলী হাওড়

২। শোলাকিয়া ঈদগাহ

৩। উবাই পার্ক

৪। অষ্টগ্রাম হাওড়

৫। নরসুন্দা লেকসিটি

৬। পাগলা মসজিদ

৭। শেখ মাহমুদ শাহ মসজিদ

৮। কুতুব শাহ মসজিদ

৩০। ঝিনাইদহঃ আয়তনঃ ১৯৪৯.৬২ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৬টি, ইউনিয়নঃ ৬৭টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। গোড়ার মসজিদ

২। শৈলকূপা শাহী মসজিদ

৩। নলডাঙ্গা মন্দির

৪। কে.পি. বসুর বাড়ি

৫।  জোড় বাংলা মসজিদ

৬।  সাত গাছিয়া মসজিদ

৭। দত্ত নগর কৃষি খামার

৮। মল্লিকপুরের বটগাছ

৯। ঢোল সমুদ্র দীঘি

১০। সিরাজ সাঁইর মাজার

১১। লালন শাহের ভিটা

১২। ফকির মাহমুদ বিশ্বাসের মাজার

১৩। মিয়ার দালান

১৪। গাজী কালু চম্পাবতীর বাজার

১৫। কামান্না ২৭ শহীদের মাজার

৩১। ঝালকাঠিঃ আয়তনঃ ৭৫৮.০৬ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৪টি, ইউনিয়নঃ ৩২টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। শিব বাড়ি মন্দির ও ঠাকুর বাড়ি

২। লেহাজ চান চিশতির মাজার

৩। কীর্তিপাশা জমিদার বাড়ি

৪। বেশনাই মল্লিকের দীঘি

৫। গাবখান সেতু

৬। সিটি পার্ক

৭। মিয়া বাড়ি মসজিদ

৮। শেরে বাংলা একে ফজলুল হকের নানা বাড়ি

৩২। যশোরঃ আয়তনঃ ২৫৯৪.৯৫ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৮টি, ইউনিয়নঃ ৯৩টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। ঝাপ বাওড়

২। খড়িঞ্চা বাওড়

৩। মাইকেল মধুসূদন দত্তের বাড়ি

৪। মির্জানগর হাম্মাম খানা

৫। কালুডাঙ্গা মন্দির

৬। বীরশ্রেষ্ঠ নূর মুহাম্মাদের মাজার

৭। বিনোদিয়া ফ্যামিলি পার্ক

৮। যশোর বোট ক্লাব

৯। দমদম পীরের ডিবি

১০। গদাধরপুর বাওড়

১১। মধুপল্লী

১২। ধীরাজ ভট্টাচার্যের বাড়ি

১৩। বেনাপোল স্থল বন্দর

১৪। চাঁচড়া রাজবাড়ি

১৫। গদাখালি ফুলের বাগান

১৬। চাঁচড়ার মৎস উৎপাদন কেন্দ্র

৩৩। খুলনাঃ আয়তনঃ ৪৩৯৪ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৯টি, ইউনিয়নঃ ৬৮টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। সুন্দরবনের করমজল

২। শিরোমণি স্মৃতিসৌধ

৩। কবি কৃষ্ণচন্দ্র ইনস্টিটিউট

৪। দক্ষিণডিহি

৫। দুবলার চর

৬। চুকনগর বদ্ধভূমি

৭। জাহানাবাদ ক্যান্টনমেন্ট চিড়িয়াখানা

৮। শ্রী শ্রী দুর্গাবাড়ি মন্দির

৯। গল্লামারী বদ্ধভূমি

১০। স্যার পি.সি. রায়ের বাড়ি

১১। সুন্দরবনের কটকা

১২। সুন্দরবনের হিরণ পয়েন্ট

১৩। খানজাহান আলী সেতু

১৪। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের শ্বশুরবাড়ি

৩৪। জয়পুরহাটঃ আয়তনঃ ৯৬৫.৪৪ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৫টি , ইউনিয়নঃ ৩২টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। নান্দাইল দীঘি

২। মাছরাঙ্গা দীঘি

৩। হিন্দা-কসবা জামে মসজিদ

৪। বার শিবালয় মন্দির

৩৫। কুড়িগ্রামঃ আয়তনঃ ২২৪৫.০৪ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৯টি, ইউনিয়নঃ ৭২টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। চান্দামারী মসজিদ

২। শাহী মসজিদ

৩। চন্ডী মন্দির

৪। দোলমঞ্চ মন্দির

৫। ভেতরবন্দ জমিদার বাড়ি

৬। চিলমারী বন্দর

৭। মোগলবাসা ভাটলার সুইচগেট

৮। ধরলা ব্রিজের পাড় পিকনিক স্পট

৯। যোগাদহ বাজার

৩৬। কুষ্টিয়াঃ আয়তনঃ ১৬০৮.৮০ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৬টি, ইউনিয়নঃ ৬৫টি ।

ভ্রমণস্পটঃ

১। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কুঠি বাড়ি

২। লালন শাহের মাজার

৩। টেগর লজ

৪। গোপীনাথ জিউর মাজার

৫। মীর মশাররফ হোসেনের বাস্তুভিটা

৬। ঝাউদিয়ার শাহী মসজিদ

৭। মোহিনী মিল

৩৭। লক্ষ্মীপুরঃ আয়তনঃ ১৪৫৬ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৫টি, ইউনিয়নঃ ৫৮টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। হাজী ওমর আলীর মাজার

২। তেলিয়ার চর ও চর গজারিয়া

৩। লক্ষ্মীধর পাড়া

৪। শাহ ফকির মাজার

৫। নারকেল ও সুপারির বাগান

৬। খোয়া সাগর দীঘি

৭। ইসহাক জমিদার বাড়ি

৮। মেঘনা নদী

৯। শ্রীপুর দাস বাড়ি

১০। দালাল বাজার জমিদার বাড়ি

১১। কামানখোলা জমিদার বাড়ি

১২। জ্বীনের মসজিদ

১৩। মটকা মসজিদ

১৪। ভোম রাজার দীঘি

৩৮। মাদারীপুরঃ আয়তনঃ ১১৪৪.৯৬ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৪টি, ইউনিয়নঃ ৫৯টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। হযরত শাহ মাদারের দরগাহ

২। হর্টিকালচার

৩। শকুনী লেক

৪। রাজারাম মন্দির

৫। সেনাপতির দীঘি

৬। মিঠাপুর জমিদার বাড়ি

৭। ইকো পার্ক

৮। ঝাউদি গিরি

৯। পর্বতের বাগান

১০। আউলিয়াপুর নীলকুঠি

৩৯। মাগুরাঃ আয়তনঃ ১০৪৯ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৪টি, ইউনিয়নঃ ৩৬টি ।

ভ্রমণস্পটঃ

১। রাজা সীতারামের প্রাসাদ

২। পীর মোকাররম আলী শাহ এর দরগাহ

৩। ভাতের ভিটা

৪। নেংটা বাবার আশ্রম

৫। সিদ্ধেশ্বরী মঠ

৬। শ্রীপুর জমিদার বাড়ি

৭। মদনমোহন মন্দির

৪০। লালমনিরহাটঃ আয়তনঃ ১২৪৭.৩৭ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৫টি, ইউনিয়নঃ ৪৫টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। তিন বিঘা করিডোর ও দহগ্রাম ছিটমহল

২। নিদাড়িয়া মসজিদ

৩। তুষভান্ডার জমিদার বাড়ি

৪। কাকিনা জমিদার বাড়ি

৫। বুড়িমারী স্থলবন্দর

৬। তিস্তা ব্যারেজ ও অবসর রেস্ট হাউজ

৭। হারানো মসজিদ

৪১। মানিকগঞ্জঃ আয়তনঃ ১৩৭৮.৯৯ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৭টি, ইউনিয়নঃ ৬৫টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। বালিয়াটি জমিদার বাড়ি

২। তেওতা জমিদার বাড়ি

৪২। মেহেরপুরঃ আয়তনঃ ৭১৬.০৮ বর্গ ককি.মি. । উপজেলাঃ ০৩টি, ইউনিয়নঃ ১৮টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। মুজিবনগর মুক্তিযুদ্ধ কমপ্লেক্স ও আম্রকানন

২। মেহেরপুর স্মৃতিসৌধ

৩। আমদহ গ্রামের স্থাপত্য নিদর্শন

৪। সিদ্ধেশ্বরী কালী মন্দির

৫। আমঝুপি নীলকুঠি

৬। ডিসি ইকোপার্ক

৭। ভবান্দপুর মন্দির

৮। স্বামী নিগমানন্দ আশ্রম

৪৩। মৌলভীবাজারঃ আয়তনঃ ২৭৯৯ বর্গ কিমি. । উপজেলাঃ ০৭টি, ইউনিয়নঃ ১৪টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। হামহাম ঝর্ণা

২। গ্র্যান্ড সুলতান টি-রিসোর্ট এন্ড গলফ

৩। লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান

৪। মাধবপুর লেক

৫। হাকালুকি হাওড়

৬। বাইক্কা বিল

৭। মাধবকুন্ড ঝর্ণা

৪৪। নারায়নগঞ্জঃ আয়তনঃ ৬৮৩.১৪ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৫টি, ইউনিয়নঃ ৩৯টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। মেরি এন্ডারসন

২। সাতগ্রাম জমিদার বাড়ি

৩। সুলতান গিয়াস উদ্দীন আজম শাহের মাজার

৪। মুড়াপাড়া জমিদার বাড়ি

৫। বিশ্বনন্দী ফেরিঘ্ট ও মেঘনা নদী

৬। কদম রসূল দরগাহ

৭। জমিদার আমলের অম্বিকা কুটির

৮। সোনারগাঁও লোকশিল্প জাদুঘর

৯। লোকনাথ ব্রহ্মচারীর আশ্রম

১০। জিন্দা পার্ক

১১। চারিতালুক পাল বাড়ি

১২। পানাম সিটি

১৩। জ্যোতি বসুর বাড়ি

৪৫। নাটোরঃ আয়তনঃ ১৮৯৬.০৫ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৭টি, ইউনিয়নঃ ৫২টি ।

ভ্রমণস্পটঃ

১। উত্তরা গণভবন

২। রাণী ভবানীর রাজবাড়ি

৩। দয়রামাপুর রাজবাড়ী

৪। ফকিরচাঁদ বৈষ্ণব গোঁসাইজির আশ্রম

৫। শহীদ সাগর

৬। চলনবিল

৭। হালতি বিল

৮। চলনবিল জাদুঘর

৪৬। নরসিংদীঃ আয়তনঃ ৩৩৬০.৫৯ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৬টি, ইউনিয়নঃ ৭১টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। ওয়ারী-বটেশ্বর

২। মনু মিয়ার জমিদার বাড়ি

৩। সোনাইমুড়ি টেক

৪। লটকন বাগান

৫। বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমানের বাড়ি

৬। গিরিশ চন্দ্র সেনের বাড়ি

৭। নবীনচন্দ্র সাহার জমিদার বাড়ি

৮। লক্ষণ সাহার জমিদার বাড়ি

৯। ড্রিম হলিডে পার্ক

৪৭। মুন্সীগঞ্জঃ আয়তনঃ ৯৫৪.৯৬ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৬টি, ইউনিয়নঃ ৬৭টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। ইন্দ্রাকপুর কেল্লা

২। মাওয়া রিসোর্ট

৩। অতীশ দীপঙ্করের পৈত্রিক ভিটা

৪। পদ্মা রিসোর্ট

৫। রাজ বল্লাল সেনের দীঘি

৪৮। নওগাঁঃ আয়তনঃ ৩৪৫৩.৬৭ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ১১টি, ইউনিয়নঃ ৯৯টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। কুসুম্বা মসজিদ

২। পাহাড়পুর বৌদ্ধ বিহার

৩। বলিহাড় রাজবাড়ী

৪। পতিসর কাচারীবাড়ি

৫। জবাই বিল

৬। জগদ্দল বিহার

৭। আলতা দীঘি

৮। দিব্যক জয়স্তম্ভ

৯। মহি সন্তোষ

৪৯। নীলফামারীঃ আয়তনঃ ১৬৪৩.৪০ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৬টি, ইউনিয়নঃ ৬০টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। কুন্দ পুকুর মাজার

২। যাদুঘর

৩। হরিশ্চন্দ্রের পাঠ

৪। ভিমের মায়ের চুলা

৫। নীল কুঠি

৬। ধর্মপালের রাজবাড়ি

৭। নীল সাগর

৫০। পাবনাঃ আয়তনঃ ২৩৭১.৫০ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৯টি, ইউনিয়নঃ ৭৪টি ।

ভ্রমণস্পটঃ

১। ঠাকুর অনুকূল চন্দ্রের আশ্রম

২। ক্ষেতুপাড়া জমিদার বাড়ি

৩। প্রমথ চৌধুরীর পৈত্রিক নিবাস

৪। ঐতিহ্যবাহী তাঁতশিল্প

৫। চাটমোহর শাহী মসজিদ

৬। তাতীবন্দ জমিদার বাড়ি

৭। আটঘরিয়া বংশীপাড়া গ্রামের চন্দ্রাবতীর ঘাট

৮। পাকশী হার্ডিঞ্জ ব্রিজ

৯। সুচিত্রা সেনের স্মৃতি সংগ্রহশালা

১০। লালন শাহ সেতু

১১। ঈশ্বরদী রেল জংশন

৫১। নড়াইলঃ আয়তনঃ ৯৯০.২৩ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৩টি, ইউনিয়নঃ ৩৯টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। অরুনিমা কান্ট্রিসাইড এন্ড গলফ রিসোর্ট

২। বাধা ঘাট

৩। তপনভাগ দীঘি

৪। চিত্র রিসোর্ট

৫। নিরিবিলি পিকনিক স্পট

৬। কথা সাহিত্যিক নীহাররঞ্জন গুপ্তের পৈত্রিক নিবাস

৭। স্বাধীনতা স্মৃতিস্তম্ভ

৮। চিত্রশিল্পী এস এম সুলতানের সমাধী

৫২। নোয়াখালীঃ আয়তনঃ ৪২০২.৭০ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৯টি, ইউনিয়নঃ ৯১টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। বজরা শাহী মসজিদ

২। মুছাপুর ক্লোজার

৩। নিঝুম দ্বীপ

৪। গান্ধী আশ্রম

৫। বীরশ্রেষ্ঠ মোহাম্মদ রুহুল আমিন স্মৃতি যাদুঘর

৫৩। রংপুরঃ আয়তনঃ ২৪০০.৫৬ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৮টি, ইউনিয়নঃ ৭৬টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। ভিন্ন জগত

২। চিকলির বিল

৩। শ্বাশত বাংলা

৪। ইটাকুমারী জমিদার বাড়ি

৫। বেগম রোকেয়া স্মৃতিকেন্দ্র

৬। লাহিড়ীর হাট বধ্যভূমি

৭। মায়া ভুবন

৮। পুরাকীর্তি

৯। নয় গম্বুজ মসজিদ

১০। তাজহাট জমিদার বাড়ি

১১। টাউন হল

১২। রংপুর চিড়িয়াখানা

১৩। আনন্দ নগর

১৪। ইকোপার্ক

১৫। মিঠাপুকুর দীঘি

৫৪। পিরোজপুরঃ আয়তনঃ ১২৭৭.৮০ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৭টি, ইউনিয়নঃ ৫২টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। ডিসি পার্ক

২। হুলারহাট নদীবন্দর

৩। আটঘর আমড়া বাগান

৪। কবি আহসান হাবীব এর বাড়ি

৫। আজিম ফরায়েজীর মাজার

৬। সারেংকাঠি পিকনিক স্পট

৭। কুড়িয়ানা পেয়ারা বাজার

৮। রায়ের কাঠি জমিদার বাড়ি

৯। পাড়ের হাট জমিদার বাড়ি

১০। বলেশ্বর ষাট শহীদ স্মৃতিস্তম্ভ

১১। ভান্ডারিয়া শিশুপার্ক

৫৫। পটুয়াখালীঃ আয়তনঃ ৩২২১.৩১ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৮টি, ইউনিয়নঃ ৭৫টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত

২। আঃ রাজ্জাক বিশ্বাসের সাপের খামার

৩। লাউকাঠি ওয়াপদা কলোনী দীঘি

৪। শ্রীরামপুর জমিদার বাড়ি

৫। আলীপুর মাছ বাজার

৬। চর বিজয়

৭। ফাতরার চর

৮। লেবুর চর

৫৬। পঞ্চগড়ঃ আয়তনঃ ১৪০৪.৬৩ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ৫টি, ইউনিয়নঃ ৪৩টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। মির্জপুর শাহী মসজিদ

২। রকস্ মিউজিয়াম

৩। বাংলাবান্ধা জিরো পয়েন্ট

৪। মিরগড়

৫। গোলকধাম মন্দির

৬। মহারাজার দীঘি

৭। ভিতরগড় দুর্গনগরী

৮। এশিয়ান হাইওয়ে

৯। তেতুলিয়া ডাকবাংলো

৫৭। রাজশাহীঃ আয়তনঃ ২৪০৭.০১ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৯টি, ইউনিয়নঃ ১৩টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। পুঠিয়া শিবমন্দির

২। হাওয়াখানা

৩। পুঠিয়া রাজবাড়ি

৪। বরেন্দ্র গবেষণা যাদুঘর

৫। শহীদ কামরুজ্জামান কেন্দ্রীয় উদ্যান ও চিড়িয়াখানা

৬। পদ্মার পাড়

৭। শাহ মাখদুমের মাজার

৮। বাঘা মসজিদ

৫৮। রাজবাড়ীঃ আয়তনঃ ১০৯২.৩০ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৫টি, ইউনিয়নঃ ৪২টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। মীর মোশাররফ হোসেন স্মৃতি কেন্দ্র

২। শাহ পালোয়ানের মাজার

৩। জোরবাংলা মন্দির

৫৯। সাতক্ষীরাঃ আয়তনঃ ৩৮৫৮.৩৩ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৭টি, ইউনিয়নঃ ৭৮টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। কপোতক্ষ নদ

২। ঐতিহাসিক গির্জা

৩। লিমপিড বোটানিক্যাল গার্ডেন

৪। দেবহাটা জমিদার বাড়ি

৫। মোজাফফর গার্ডেন এন্ড রিসোর্ট

৬। নলতা শরীফ

৭। গুনাকরকাটি মাজার

৮। মান্দারবাড়িয়অ সমুদ্র সৈকত

৯। দেবহাটা ম্যানগওভ পর্যটন কেন্দ্র

৬০। শরীয়তপুরঃ আয়তনঃ ১১৮১.০০ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৬টি, ইউনিয়নঃ ৬৫টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। ধানুকার মনসা বাড়ি

২। ফতেহজংপুর দূর্গ

৩। রুদ্রকর মঠ

৪। রামসাধুর আশ্রম

৬১। সিলেটঃ আয়তনঃ ৩৪৫২.০৭ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ১৩টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। হযরত শাহ জালাল রহঃ এর মাজার

২। হযরত শাহ পরান রহঃ এর মাজার

৩। জাফলং

৪। ভোলাগঞ্জ

৫। মালনীছড়া চা বাগান

৬। রায়ের গাঁও হাওড়

৭। বিছানাকান্দি

৮। লালাখাল

৯। এডভেঞ্চার ওয়ার্ল্ড

১০। লক্কাতুর চা বাগান

১১। রাতারগুল জলাবন

১২। পান্তুমাই

ক্রিকেট মাঠের মাপ, পিচের মাপ, খেলার নিয়ম বিস্তারিত

৬২। সুনামগঞ্জঃ আয়তনঃ ৩৭৪৭.১৮ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ১১টি, ইউনিয়নঃ ৮৭টি

ভ্রমণস্পটঃ

১। টাঙ্গুয়ার হাওড়

২। ডালুরা শহীদদের সমাধি সৌধ

৩। গৌররাং জমিদার বাড়ি

৪। সম্রাট শাহ আব্দুল করিমের বাড়ি

৫। যাদুকাটা নদী

৬। বারেকের টিলা

৭। শহীদ সিরাজ লেক

৮। হাসন রাজার বাড়ি

৯। পাইলগাঁও জমিদার বাড়ি

১০। সুরমা নদী

১১। শিমুল বাগান

১২। লাউয়ের গড়

১৩। বর্ডার হাট

ঠাকুরগাঁও ভ্রমণ স্পট ও দর্শনীয় স্থানের তালিকা

৬৩। ঠাকুরগাঁওঃ আয়তনঃ ১৮০৯.৫২ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৫টি, ইউনিয়নঃ ৫৩টি ।

ভ্রমণস্পটঃ

১। লোকায়ন জীবন বৈচিত্র যাদুঘর

২। রাণীশংকৈল

৩। হরিপুর জমিদার বাড়ি

৪। গোরক্ষনাথ মন্দির

৫। হরিপুর রাজবাড়ি

৬। জগদল রাজবাড়ি

৭। বাংলাগড়

৮। রাজভিটা

সিরাজগঞ্জের ভ্রমণ স্পট ও দর্শনীয় স্থানের তালিকা

৬৪। সিরাজগঞ্জঃ আয়তনঃ ২৪৯৭.৯২ বর্গ কি.মি. । উপজেলাঃ ০৯টি, ইউনিয়নঃ ৮৩টি ।

ভ্রমণস্পটঃ

১। নবরত্ন মন্দির

২। জয়সাগর দীঘি

৩। ইকোপার্ক

৪। যাদব চক্রবর্তীর বাড়ি

৫। ভোলা দেওয়ানের মাজার

৬। মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর বাড়ি

৭। সূচিত্র সেনের ভাঙাবাড়ি গ্রাম

৮। ইলিয়ট ব্রিজ

৯। মুক্তির সোপান

১০। সৈয়দ ইসমাইল হোসেন সিরাজীর বাড়ি

১১।  আটঘরিয়া জমিদার বাড়ি

১২। মকিমপুর জমিদার বাড়ি

১৩। স্যানাল জমিদারের শিব দুর্গা মন্দির

ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজহার নামাজের নিয়ম

বাংলাদেশের ৬৪ জেলার ভ্রমণ স্পট ও দর্শনীয় স্থান সমূহ সম্পর্কে পরবর্তীতে আপডেট পেতে নিয়মিত আর্টিকেলটিতে চোঁখ রাখুন। মন্তব্য বক্সে কমেন্ট করুন। আর আপনার ভ্রমণপিপাসু ফ্রেন্ডদের সাথে শেয়ার করুন। আপনার ভ্রমণ শুভ হোক।

Samim Ahmed

Hey! I'm Samim Ahmed (Admin of ShikhiBD). I love to write and read on the topic of current affairs. Since my childhood; I have been an expert in writing feature posts for various magazines.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button